Apr 21, 2024
Headlines

Bullet Train in kolkata: বন্দে ভারতের পরে এবার হাওড়া থেকে ছুটবে বুলেট ট্রেন

post-img

সুষমা পাল মন্ডল। কলকাতা সারাদিন। 

রেল পরিষেবা ভারতীয় নাগরিকদের কাছে গণপরিবহনের লাইফ লাইন। রেল পরিষেবার এমন গুরুত্বের কথা মাথায় রেখে ভারতীয় রেলের (Indian Railways) তরফ থেকে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন পরিকল্পনা গ্রহণ করা হচ্ছে। 

নীল-সাদা বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ইতিমধ্যে দেশবাসীর মন জয় করে নিয়েছে। এবার আসতে চলেছে দ্রুত গতির বুলেট ট্রেন।

কেবল মুম্বই-আহমেদাবাদ রুটে নয়, কলকাতাতেও ছুটবে বিশ্বমানের প্রযুক্তিতে নির্মিত এই ট্রেন। রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব ইতিমধ্যে বুলেট ট্রেনের জন্য ৩টি গোল্ডেন রুটের রূপরেখা স্থির করেছেন।

2000 Crores Investment in Bengal : বাংলায় বিপুল বিনিয়োগ, বাংলায় ২০০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ এর সিদ্ধান্ত সুইডিশ সংস্থা IKEA -র, হবে ৪০০০ নতুন কর্মসংস্থান2000-Crores-in-West-Bengal

তবে বন্দে ভারত এক্সপ্রেস হোক অথবা অমৃত ভারত এক্সপ্রেস, এই সকল ট্রেন আগামী দিনে অতীত হতে চলেছে। কেননা এই সকল ট্রেন ভারতীয়দের মন জয় করার পর এবার ভারতীয়দের মন জয় করতে আসতে চলেছে বিদেশি ধাঁচের বুলেট ট্রেন (Bullet Train)।

ইতিমধ্যেই বুলেট ট্রেনের হাইস্পিড করিডোর হিসাবে মুম্বাই-আমেদাবাদ রুটকে বেছে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু এই একটি রুটেই থেমে থাকছে না ভারতীয় রেল। ভারতীয় রেলের থেকে এর থেকেও বড় খবর পাওয়া যাচ্ছে ভারতীয়দের জন্য।

Kolkata Job Alert : কলকাতায় তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে বিপুল সংখ্যক নিয়োগ করছে তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা ক্যাপজেমিনি, জানুন কোথায় কিভাবে আবেদন করবেন #capgemini -in-Kolkata

হাওড়া স্টেশনের উপর দিয়েও বুলেট ট্রেন নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে রেলের। বিশ্বমানের প্রযুক্তি-নির্ভর বুলেট ট্রেন যেমন বুলেটের গতিতে ছুটবে, তেমনই ট্রেনটি দেখতেও হবে বিদেশি ট্রেনের মতো। যা দেখলে ভারতীয় ট্রেন বলে মনে হবে না এটি। বুলেট ট্রেনের একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেছেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব।


ভিডিয়োটিতে কী দেখা যাচ্ছে?


রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব বুলেট ট্রেনের একটি ভিডিয়ো নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে পোস্ট করেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে, মেরুন-সাদা রঙের ট্রেনটি দেখতে অবিকল বিদেশি ট্রেনের মতো। এর গতি প্রাথমিকভাবে এটি মুম্বই-আহমেদাবাদ রুটে চালু হচ্ছে। মাত্র ২ ঘণ্টাতেই ৫০৮ কিলোমিটার পৌঁছে যাবে এই ট্রেন। ট্রেনের প্রাথমিক গতি ঘণ্টায় ৩২০ কিলোমিটার। বুলেট ট্রেনের জন্য আলাদা করিডর করা হচ্ছে। যা ২৪টি নদী সেতু, ২৮টি স্টিল ব্রিজ ও ৭টি সুড়ঙ্গের মধ্য দিয়ে যাবে।

London based Kantar Group in Kolkata : কলকাতায় নিজেদের নতুন দপ্তর খুলল ব্রিটেনের মার্কেটিং ডাটা ও অ্যানালিটিকস বিজনেস সংস্থা কান্তার গ্রুপ #jobalert Kantar #kantar -Kolkata

ভারতীয় রেলের বুলেট ট্রেনের আগামী দিনের যে গোল্ডেন রুট রয়েছে সেই সকল গোল্ডেন রুটে মুম্বাই-আমেদাবাদ রুট ছাড়াও আরও তিনটি রুট রয়েছে। আর এই তিনটি গোল্ডেন রুটের মধ্যে একটি আবার রয়েছে কলকাতায়। রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবের যে পরিকল্পনা রয়েছে সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী বিশ্বমানের বুলেট ট্রেন আগামী দিনে পাবে তিলোত্তমাও। এমনকি পরিকল্পনা থেকে জানা যাচ্ছে, এই বুলেট ট্রেন হাওড়া স্টেশনের ওপর দিয়েও ছুটতে পারে।


রেলমন্ত্রীর যে পরিকল্পনা রয়েছে সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী কোন কোন রুটে বুলেট ট্রেন আগামী দিনে পথ চলা শুরু করবে? ইতিমধ্যেই মুম্বাই থেকে আমেদাবাদ রুটের বুলেট ট্রেনের কাজ চলছে। এমনকি সেই কাজ এতটাই এগিয়ে গিয়েছে যে খুব তাড়াতাড়ি হয়তো ভারতীয়রা বুলেট ট্রেনের দেখা পাবেন। তবে এই রুটটি ছাড়াও একটি রুট হতে পারে কলকাতা থেকে দিল্লি, মুম্বাই থেকে চেন্নাই এবং আরেকটি রুট হতে পারে মুম্বাই থেকে দিল্লি।


মুম্বাই থেকে দিল্লি রুটে পড়বে মোট ১৪০২ কিলোমিটার। অন্যদিকে কলকাতা থেকে দিল্লী যে রুটের পরিকল্পনা করা হচ্ছে তার আওতায় আসবে ১৪৭৪ কিলোমিটার।

অন্যদিকে মুম্বাই থেকে চেন্নাই রুটে বুলেট ট্রেন কভার করবে ১৩১৭ কিলোমিটার। চতুর্ভুজের আকারে দেশের চারটি রাজধানীকে বুলেট ট্রেনের মাধ্যমে জুড়ে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে রেল মন্ত্রীর। তবে এর পাশাপাশি বুলেট ট্রেনের মাধ্যমে আরও বেশকিছু রুট নিয়েও চলছে সমীক্ষা।

US Firm Tredence in Kolkata : ডেস্টিনেশন বেঙ্গল, কলকাতায় নিজেদের পূর্বাঞ্চলীয় সদর দপ্তর খুললো মার্কিন ডাটা সায়েন্স সংস্থা ট্রেডেন্স #tredencea-in-KOLKATA

সেই সকল রুটগুলি হল দিল্লি-বারাণসী, দিল্লি-আহমেদাবাদ, মুম্বই-নাগপুর, মুম্বই-হায়দরাবাদ, চেন্নাই-বেঙ্গালুরু-মহীশূর, দিল্লি-চণ্ডীগঢ়-অমৃতসর এবং বারাণসী-হাওড়া।

তবে এই পুরো পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করা একদিকে যেমন ব্যয়বহুল ঠিক সেই রকমই সময় সাপেক্ষ। যে কারণে এর বাস্তবায়ন দেখতে ভারতীয়দের আরও কয়েক বছর অপেক্ষা করতে হতেও পারে।

Related Post

About Us

24 Hour Online Bengali & English News Portal Registered under Government of India. Head Office in Kokata.

Need Help? Connect Now